অবশেষে শাকিব ও অপুর বিচ্ছেদ

অবশেষে চিত্রতারকা দম্পতি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিচ্ছেদ হয়েই গেলো। সোমবার (১২ মার্চ) ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) পক্ষ থেকে তৃতীয় ও শেষবারের মতো দু’পক্ষকে ডাকা হলে তারা কেউই উপস্থিত হননি। তাই তাদের ডিভোর্সের বিষয়টি আর মীমাংসা হলো না। নিয়মানুযায়ী শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস এখন থেকে আর স্বামী–স্ত্রী নয়।

এক্সক্লুসিভ ভিডিও পেতে এখনি সাবস্ক্রাইব বাটনে ক্লিক করুন
<<<লাইক দিয়ে সাথেই থাকুন>>>

সোমবার দুপুরে ডিএনসিসি অঞ্চল-৩ এর নির্বাহী কর্মকর্তা হেমায়েত হোসেন  বলেন, ‘শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্সের বিষয়টি মীমাংসার জন্য তলব করা হলে তারা কেউ উপস্থিত হননি। তাই আইন অনুযায়ী তাদের ডিভোর্স কার্যকর হয়ে গেলো। আমাদের হতে এখন আর কিছু নেই’।

অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্স দেওয়ার জন্য ২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর চিঠি ইস্যু করেন শাকিব খান। ইস্যুকৃত তারিখ থেকে পরবর্তী তিন মাস পর ডিভোর্স কার্যকর হওয়ার বিধান রয়েছে। গত ২২ ফেব্রুয়ারি তাদের ডিভোর্সের তিন মাস পূর্ণ হয়। তখনই তাদের বিচ্ছেদের বিষয়টি চূড়ান্ত হয়। তবে ডিএনসিসির পক্ষ থেকে সালিশের জন্য আরেকটি তারিখ (১২ মার্চ) নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু এদিন দু’পক্ষের কেউ উপস্থিত হয়নি। সুতরাং আইন অনুযায়ী তাদের ডিভোর্স কার্যকর হয়ে যাচ্ছে।

চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় জুটি শাকিব-অপু ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গোপনে বিয়ে করেন। দীর্ঘ দিন পর গত বছরের ১০ এপ্রিল বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে গণমাধ্যমে জানান অপু বিশ্বাস। তাদের পরিবারে রয়েছে একজন ছেলে সন্তান, আব্রাম খান জয়।

শাকিব খান আগের মতোই চলচ্চিত্রের ক্যারিয়ার নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। এদিকে অপুর মিডিয়ায় সরব রয়েছেন।